TadantaChitra.Com | logo

৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

মডার্না বিতর্ক তুঙ্গে, আরও ১০ লাখ ডোজ স্থগিত

প্রকাশিত : আগস্ট ৩০, ২০২১, ১১:৫২

মডার্না বিতর্ক তুঙ্গে, আরও ১০ লাখ ডোজ স্থগিত

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ জাপানে মডার্না টিকার ‘দূষণ’ নিয়ে বিতর্ক যেন থামছেই না। দেশটিতে নতুন করে কয়েকটি ভায়ালের মধ্যে ‘দূষিত বস্তু’ শনাক্ত হওয়ায় আরও ১০ লাখ ডোজের ব্যবহার স্থগিত ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। ‘দূষিত’ টিকা নিয়ে দুইজনের মৃত্যুর পর জাপান সরকার নতুন করে মডার্নার আরও দুটি লটে উৎপাদিত টিকার ব্যবহার স্থগিতের এ সিদ্ধান্ত টিকাদান কার্যক্রমকে বাধাগ্রস্ত করবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। খবর রয়টার্সের।

এর আগে, গত বৃহস্পতিবার (২৬ আগস্ট) মডার্না টিকার তিনটি লটে উৎপাদিত ১৬ লাখ ৩০ হাজার ডোজের ব্যবহার স্থগিত করে জাপান। এর সপ্তাহখানেক আগে সেগুলোর কয়েকটি ডোজ ‘দূষিত’ হওয়ার খবর পায় স্থানীয় পরিবেশক তাকেদা ফার্মাসিউটিক্যাল। কিন্তু ব্যবহার স্থগিত হওয়ার আগেই দেশব্যাপী ৮৬৩টি কেন্দ্রে টিকাগুলো পাঠানো হয়ে গিয়েছিল।

টিকা দূষণের সবশেষ খবরগুলো এসেছে জাপানের গুনমা ও ওকিনাওয়া অঞ্চল থেকে। এর পরিপ্রেক্ষিতে গত রোববার (২৯ আগস্ট) নতুন করে মডার্নার ১০ লাখ ডোজের ব্যবহার স্থগিত করা হয়।

গুনমার এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সেখানে মডার্না টিকার একটি ভায়ালে সূক্ষ্ম কালো বস্তু পাওয়া গেছে। আর ওকিনাওয়ার এক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সেখানে একটি সিরিঞ্জে কালো ও আরেকটি সিরিঞ্জে গোলাপি বস্তু দেখতে পাওয়া গেছে।

জাপানের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় বলেছে, ভায়ালের মধ্যে ভুলভাবে সিরিঞ্জের সুচ ঢোকানোর কারণে এ ধরনের ঘটনা ঘটতে পারে। হয়তো ভায়ালের রাবার স্টপারের কিছু অংশ সিরিঞ্জের মধ্যে চলে গিয়েছিল। ফলে ওই দুটি লটের অন্য টিকাগুলো যথারীতি ব্যবহার করা যাবে।

গত শনিবার (২৮ আগস্ট) জাপান সরকার জানিয়েছিল, সেখানে স্থগিত করা লটের মডার্না টিকা গ্রহণের পর দু’জনের মৃত্যু হয়েছে। এক বিবৃতিতে তারা জানায়, বছর ৩০-এর ওই দুই ব্যক্তি মডার্না টিকার দ্বিতীয় ডোজ গ্রহণের কয়েকদিনের মাথায় মারা যান। তাদের মৃত্যুর কারণ জানতে তদন্ত চলছে।

তবে জাপান সরকারের পক্ষ থেকেও এখন পর্যন্ত মডার্না টিকার সুরক্ষা বা কার্যকারিতা নিয়ে কোনো সমস্যার কথা জানানো হয়নি। বলা হয়েছে, সেখানে তিনটি লটের টিকার ব্যবহার স্থগিত করা হয়েছিল পূর্বসতর্কতাস্বরূপ।

ভ্যাকসিন ইনফরমেশন গ্রুপ কোভ-নাভির ভাইস চেয়ারম্যান ও ফিজিশিয়ান তাকাহিরো কিনোশিতার মতে, বাহ্যিক বস্তুর উপস্থিতির কারণে আকস্মিক মৃত্যু হওয়ার কথা নয়। তিনি বলেন, যদি দূষিত বস্তুগুলো কারো মৃত্যু ঘটানোর মতো এতটাই বিপজ্জনক হতো, তাহলে সম্ভবত আরও অনেক মানুষ টিকাগ্রহণের পর উপসর্গে ভুগতেন। ওই ডোজগুলোর ক্ষতি মূল্যায়নের জন্য অবশ্যই আরো তদন্ত প্রয়োজন।

জাপান এর আগে মডার্নার যে ১৬ লক্ষাধিক ডোজ স্থগিত করেছিল, সেগুলো থেকে প্রায় পাঁচ লাখ মানুষ টিকা নিয়েছিলেন। এছাড়া, গুনমা অঞ্চলে অন্তত ৪ হাজার ৫৭৫ জন স্থগিত লটের টিকা নিয়েছেন। সেখানে এখন পর্যন্ত কেউ অসুস্থ হওয়ার খবর পাওয়া যায়নি বলে জানিয়েছেন স্থানীয় কর্মকর্তারা।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয়

৪৭৩ ডিআইটি রোড তৃতীয় তলা, মালিবাগ রেইল গেট, ঢাকা-১২১৯

মোবাইলঃ ০১৬২২৬৪৯৬১২

মেইলঃ tadantachitra93@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

তদন্ত চিত্র কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েব সাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।