TadantaChitra.Com | logo

৭ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতির শ্যালক চুরি করলেন স্কুলের গেইট…!

প্রকাশিত : সেপ্টেম্বর ০৭, ২০২১, ১০:১৮

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ সভাপতির শ্যালক চুরি করলেন স্কুলের গেইট…!

জেলা প্রতিনিধি, গোপালগঞ্জঃ মুকসুদপুর উপজেলার কৃষ্ণাদিয়া ৬নং মডেল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পুরাতন লোহার গেইট চুরি হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

গত শুক্রবার ৩ সেপ্টেম্বর দুপুরে অত্র স্কুলের পুরাতন লোহার গেইটটি যথা স্থানে দেখতে না পাওয়ায় প্রাথমিক ভাবে চুরি হওয়ার ঘটনা ধারনা করা হয়। পরে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, ওই স্কুলেরই ম্যানেজিং কমিটির ২ জন সদস্য কাউকে না জানিয়ে কৃষ্ণাদিয়া বাজারের এক লোহার লেদ ব্যবসায়ীর কাছে গোপনে বিক্রি করে দেন।

এ বিষয়ে স্থানীয় মো: লিটন শেখ নামে এক ব্যক্তি জানান, গেইটটি চুরি হওয়ার খবর শুনে আমি আশে-পাশের লোহা ব্যাবসায়ীদের থেকে খোঁজ নিতে থাকি। এ সময় জানতে পারি কৃষ্ণাদিয়া বাজারের লোহা ব্যবসায়ী বাউষখালি গ্রামের মোঃ ইছানুরের গ্রামের বাড়িতে গেইটটি রাখা আছে। সাথে সাথে উক্ত স্থানে গিয়ে গেইটটি দেখতে পাই। আমি বিষয়টি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ও ম্যানেজিং কমিটির সকলকে অবগত করে চলে আসি এবং লোহা ব্যবসায়ী ইছানূরের সাথে বিদ্যলয়ের সভাপতি ও প্রধান শিক্ষক কে মুখোমুখি করে কে বা কাহারা তার নিকট গেইট টি বিক্রি করেছে তাহা জানা হয়। পরে ওইদিন রাতেই গেইটি চোরেরা জানাজানি হওয়ার সংবাদ পেয়ে রাতের আধারে রেখে যায়।

এ বিষয়ে লোহা ব্যবসায়ী ইছানুরের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, কৃষ্ণনাদিয়া গ্রামের মনির কাজী- পিতা কাজী হাবিবুর রহমান (হবি) ও আনোয়ার শেখ – পিতা মান্নান শেখ দুপুর আনুমানিক ১২ টার দিকে বাহিরচর পাড়ার রিপনের ভ্যানে লোহার গেইটটি আমার নিকট নিয়ে এসে বিক্রি করে। গেইটটি ব্যবহারের যোগ্য বলে আমি আমার বাড়িতে কাজে লাগানোর জন্য নিয়ে যাই।

এ বিষয়ে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি চৈতন্য পাল এবং প্রধান শিক্ষক বাবু নীল রতন শীল জানান, শুক্রবার দুপুরে আমরা স্কুলের পুরাতন গেইটটি যথা স্থানে দেখতে না পেয়ে ম্যানেজিং কমিটির সকলকে অবগত করি। তবে প্রাথমিক অবস্থায় আমরা এখনো চোর শনাক্ত করতে পারিনি। লোকমুখে মনির কাজী ও আনোয়ার শেখের কথা শোনা যাচ্ছে। এ বিষয়ে শিক্ষা অফিসারের অনুমতিক্রমে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য ও অভিযুক্ত সদস্যদের নিয়ে বিষয় টির সত্যতা উদঘাটিত ও সমাধানের জন্য বসবো।

তবে এ বিষয়ে সাংবাদিকদের নিকট অভিযুক্ত মনির কাজীর বাবা হাবিবুর রহমান হবি কাজী জানান, আমার ছেলে কৃষ্ণানদিয়া ৬ নং সরকারী মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির বিদ্যুতসাহী সদস্য অন্য কমিটির সদস্যদের না জানিয়ে লোহার গেইট টি বিক্রি করে দিয়েছে। এখন সে তার ভূল বুঝতে পেরেছে। তার জন্য আমি ক্ষমা প্রার্থী।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয়

৪৭৩ ডিআইটি রোড তৃতীয় তলা, মালিবাগ রেইল গেট, ঢাকা-১২১৯

মোবাইলঃ ০১৬২২৬৪৯৬১২

মেইলঃ tadantachitra93@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

তদন্ত চিত্র কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েব সাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।