TadantaChitra.Com | logo

১১ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ | ২৪শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

মাঠে নেমে ইতিহাস গড়লেন সানজিদা

প্রকাশিত : জানুয়ারি ৩০, ২০২৪, ১১:০৪

মাঠে নেমে ইতিহাস গড়লেন সানজিদা

ভারতীয় নারী ফুটবল লিগে ঐতিহ্যবাহী ইস্টবেঙ্গলের জার্সিতে অভিষেক হয়ে গেলো বাংলাদেশ ফুটবলের পোস্টারগার্ল সানজিদা আক্তারের। আজ (মঙ্গলবার) ঘরের মাঠে ইস্টবেঙ্গল খেলেছে স্পোর্টস ওড়িশার বিপক্ষে। বাংলাদেশ জাতীয় দলের উইঙ্গার সানজিদাকে একাদেশ রেখেই অতিথি দলকে মোকাবিলা করেছেন লাল-হলুদ দলের কোচ।

এই অভিষেকের মাধ্যমে ইতিহাস গড়া হয়ে গেলো সানজিদার। ইস্টবেঙ্গল নারী ফুটবল দলে প্রথম বিদেশি সানজিদা। চলতি লিগে খেলছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক সাবিনা খাতুনও। তিনি খেলছেন কিকস্টার্ট এফসিতে। ৫ ফেব্রুয়ারি মুখোমুখি হবে সাবিনা ও সানজিদার ক্লাব।

১৯৮৬ সালে বাংলাদেশের ফুটবলারদের প্রথম পা পড়েছিল ইস্টবেঙ্গল ক্লাবে। ওই সময় লাল-হলুদ দলে ডুরান্ড কাপে খেলেছিলেন ওয়াসিম ইকবাল ও শেখ মোহাম্মদ আসলাম।

১৯৯১ সালে মোনেম মুন্না, আসলাম, গাউস, রুমিরা ইস্টবেঙ্গলে খেলেছেন। ’৯২, ’৯৩ সালে খেলে ইস্টবেঙ্গলকে চ্যাম্পিয়ন করাতে বড় ভূমিকা রেখেছিলেন মুন্না। ওয়ামিস, মুন্না, আসলাম, রুমি, গাউসদের স্মৃতি বিজড়িত ক্লাবে বাংলাদেশের প্রথম নারী ফুটবলার হিসেবে অভিষেক হলো সানজিদার।

তবে অপেক্ষাকৃত দূর্বল দল স্পোর্টস ওড়িশার বিপক্ষে জিততে পারেনি সানজিদাদের দল। ঘরের মাঠে অতিথি দলের বিপক্ষে গোলশূন্য ড্র করেছে ইস্টবেঙ্গল। শেষ দিকে ইস্টবেঙ্গলকে চেপে ধরেছিল ওড়িশা। ক্রসবারে বল লেগেছে, অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়ে ওড়িশার ফরোয়ার্ডদের শট।

সানজিদা কেমন খেললেন অভিষেক ম্যাচে? ইস্টবেঙ্গলের কোচ সানজিদাকে একাদশে নামিয়ে পুরো ম্যাচই খেলিয়েছেন। ইস্টবেঙ্গলের আক্রমণগুলো ডান দিক দিয়ে সানজিদার মাধ্যমেই বেশি হয়েছে। একাধিকবার সানজিদা ডান দিক দিয়ে দ্রুত গতিতে ওপরে উঠে প্রতিপক্ষের বক্সে বল ফেলেছেন। তবে ঘরের মাঠে কাজের কাজটি করতে পারেনি স্বাগতিক দলের ফরোয়ার্ডরা।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয়

আজাদ টাওয়ার ৪৭৬/সি-২, ডিআইটি রোড ৭ম তলা, মালিবাগ রেলগেইট, ঢাকা-১২১৯

মোবাইলঃ ০১৬২২৬৪৯৬১২ , ০১৯৩৪৩৪১৬১৮

মেইলঃ tadantachitra93@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

Web Design & Developed By
A

তদন্ত চিত্র কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েব সাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।