TadantaChitra.Com | logo

২রা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ | ১৭ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নওগাঁয় বিস্কুট খেয়ে প্রাণ গেল একই পরিবারের দুই শিশুর

প্রকাশিত : জুলাই ১০, ২০২৪, ১২:৫০

নওগাঁয় বিস্কুট খেয়ে প্রাণ গেল একই পরিবারের দুই শিশুর

বাড়ির পাশের একটি দোকান থেকে বিস্কুট কিনে খায় খাদিজা ও তাবাসসুম নামে দুই শিশু। বিস্কুট খাওয়ার পর থেকেই শুরু হয় বমি। বাড়িতে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে সুস্থ না হওয়ায় নেওয়া হয় সদর হাসপাতালে। সেখানে মৃত্যু হয় আট মাস বয়সী তাবাসসুমের। আর অবস্থার অবনতি হলে চিকিৎসার জন্য রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যু হয় ছয় বছর বয়সী খাদিজার। এ সময় বিস্কুট খেয়ে অসুস্থ হয় মইন ইসলাম (১৬) আরেক শিশু।

গতকাল মঙ্গলবার (৯ জুলাই) নওগাঁ সদর উপজেলার দোগাছী স্কুলপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নওগাঁ সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহিদুল হক এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, খাদিজা ও তাবাসসুম দোগাছী স্কুল পাড়া গ্রামের বাসিন্দা জহুরুলের মেয়ে। অসুস্থ মইন একই গ্রামের পাইলটের ছেলে। স্বজনদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, গতকাল মঙ্গলবার দুপুরের দিকে খাদিজা, তাবাসসুম ও মইন বাড়ির পাশের একটি দোকান থেকে বিস্কুট কিনে খায়। এর কিছুক্ষণ পরই তারা বমি করতে থাকে। বাড়িতে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে কোনো উন্নতি না হওয়ায় সন্ধ্যার দিকে তাদের নওগাঁ সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেওয়া হয়। হাসপাতালে নেওয়ার পর চিকিৎসক আট মাস বয়সী তাবাসসুমকে মৃত ঘোষণা করেন। আর অবস্থার অবনতি হওয়ায় খাদিজাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে নেওয়ার পর তারও মৃত্যু হয়।

ওসি জাহিদুল হক বলেন, খাদ্যে বিষক্রিয়ায় এই ঘটনা বলে চিকিৎসকরা প্রাথমিকভাবে ধারণা করছেন। শিশুদের মরদেহ দুটি নওগাঁ সদর হাসপাতালের হিমাগারে রাখা হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে মৃত্যুর সঠিক কারণ জানা যাবে। আজ বুধবার ময়নাতদন্ত শেষে মরহগুলো পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হবে। এ ব্যাপারে নওগাঁ সদর মডেল থানায় একটি মামলা করা হয়েছে বলেও জানান পুলিশের এ কর্মকর্তা।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয়

কাব্যকস সুপার মার্কেট, ৩ ডি কাওরান বাজার, ঢাকা-১২১৫।

মোবাইলঃ ০১৬২২৬৪৯৬১২, ০১৬০০০১৪০৪০

মেইলঃ tadantachitra93@gmail.com, tchitranews@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

Web Design & Developed By
A

তদন্ত চিত্র কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েব সাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।