TadantaChitra.Com | logo

৭ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ | ২২শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ

পল্লবী থানার ওসি’র জিম্মিতে পালাক্রমে ধর্ষণ!

প্রকাশিত : জুন ২৩, ২০১৯, ১৯:১৭

পল্লবী থানার ওসি’র জিম্মিতে পালাক্রমে ধর্ষণ!

সাইদুর রহমান রিমনঃ নানা কারণেই আলোচিত হয়ে উঠেছে রাজধানীর পল্লবী থানা। তারচেয়েও বেশি বিতর্কিত হয়েছেন ওই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নজরুল ইসলাম। তিনি ফেনীর সোনাগাজী থানার ওসির চেয়েও ভয়ঙ্কর বর্বরতা কান্ডের জন্ম দিয়েছেন। আগুনে পুড়িয়ে হত্যার আগে নুসরাতের ধর্ষণ বর্ণনার ভিডিও ফেসবুকে আপলোড করার বিকৃত রুচির পরিচয় দিয়েছিলেন সোনাগাজীর ওসি। আর তারই গুরু ওসি নজরুল ইসলাম ঘটিয়েছেন আরো বেশি জঘণ্যতা।
ওসি সিন্ডিকেটভুক্ত এক সাব ইন্সপেক্টর মাসের পর মাস ধরে এসএসসি উত্তীর্ণ এক তরুণিকে জিম্মি রেখেছেন। তাকে প্রতিদিন ৮/১০টি করে ইয়াবা ও উচ্চ ক্ষমতার একাধিক যৌণ উত্তেজক ওষুধ সেবন করিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে চলছেন। হতভাগী তরুণী বন্দীদশা থেকে এক মুহূর্তের জন্য ছাড়া পেয়েই ছুটে আসেন ওসি নজরুলের কক্ষে। তাকে ধর্মের বাপ ডেকে বন্দীদশায় ধারাবাহিক ধর্ষনযজ্ঞের কবল থেকে রেহাই পাওয়ার আকুতি জানিয়েছিলেন। নিজে বাদী হয়ে মামলা দায়ের করার আবেদনও করেছিলেন। কিন্তু বর্বর ওসি’র মন গলেনি, বরং উল্টো তেলে বেগুনে জ্বলে উঠেন তিনি। চুলের মুঠি ধরে টেনে হেচড়ে তরুণিকে নিজের রুম থেকে বাইরে বের করে এনে তার পাছা বরাবর তিন চারটি লাথি কষে মারেন ওসি। তারপর অশ্রাব্য গালাগাল ও ঘাড়ে ধাক্কা মেরে থানা সীমানার বাইরে বের করে দেওয়া হয় তরুণিকে।
এরপর থেকে জীবন মৃত্যুর মুখোমুখি অবস্থায় আরো বেশি বিপদগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন ওই তরুণি।

তার ভিডিও সাক্ষাৎকার শুনলে যে কারো চোখের পানি ধরে রাখা কষ্টকর হবে, ভীষণ কষ্টকর..একটু ধৈর্য ধরে অপেক্ষা করুন, ভিডিও সহ বিস্তারিত আসছে ২ য় পর্বে…….

সংবাদটি শেয়ার করুন...


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয়

৪৭৩ ডিআইটি রোড তৃতীয় তলা, মালিবাগ রেইল গেট, ঢাকা-১২১৯

মোবাইলঃ ০১৬২২৬৪৯৬১২

মেইলঃ tadantachitra93@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

তদন্তচিত্র কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। অনুমতি ছাড়া এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি ও বিষয়বস্তু অন্য কোথাও প্রকাশ করা বেআইনি।