TadantaChitra.Com | logo

২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ৭ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

আবরার হত্যা: ২৪ আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট চূড়ান্ত, দু-একদিনের মধ্যেই দাখিল

প্রকাশিত : নভেম্বর ০৫, ২০১৯, ০৬:৩৫

আবরার হত্যা: ২৪ আসামির বিরুদ্ধে চার্জশিট চূড়ান্ত, দু-একদিনের মধ্যেই দাখিল

ঢাকা: বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় গ্রেফতার ২১ ও পলাতক ৩ জন মিলিয়ে মোট ২৪ জনকে আসামি করে অভিযোগপত্র (চার্জশিট) চূড়ান্ত করা হয়েছে। আগামী দু-একদিনের মধ্যে তা আদালতে দাখিল করা হবে। চার্জশিটভুক্তরা সবাই বুয়েটের ছাত্র ও ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত।

ঢাকা মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ডিবি) আব্দুল বাতেন গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

এদিকে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা লালবাগ জোনাল টিম, গোয়েন্দা (দক্ষিণ) বিভাগের পুলিশ পরিদর্শক মো. ওয়াহিদুজ্জামান তদন্ত শেষে প্রতিবেদন নিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলছেন। এ নিয়ে ঢাকা মহানগর দায়রা আদালতের সরকারি কৌঁসুলি (মহানগর পিপি) মো. আবদুল্লাহ আবুর সঙ্গেও পরামর্শ করেছেন তিনি।

আবরার ফাহাদ হত্যা মামলায় এখন পর্যন্ত ২১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন ৮ জন। তারা হলেন- অনিক সরকার, ইফতি মোশাররফ, মেহেদী হাসান ওরফে রবিন, মেফতাহুল ইসলাম, মুজাহিদুল, মনিরুজ্জামান মনির, খন্দকার তাবাখখারুল ইসলাম তানভীর ও এ এস এম নাজমুস সাদাত।

এছাড়া আলোচিত এ হত্যা মামলায় এজাহারভুক্ত ৩ জন এখনও পলাতক আছেন। বাকিরা সবাই কারাগারে। সাক্ষীদের জবানবন্দি, আসামিদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির ভিত্তিতে চার্জশিট প্রস্তুত করা হয়েছে। চার্জশিটভুক্ত সবার বিরুদ্ধে প্রাথমিকভাবে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে বলে জানা গেছে।

গেল ৫ অক্টোবর বিকেলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দেন ফাহাদ। এর জের ধরে ৬ অক্টোবর রাতে বুয়েটের শেরে-বাংলা হলে নিজের ১০১১ নম্বর কক্ষ থেকে তাকে ডেকে নিয়ে ২০১১ নম্বর কক্ষে বেধড়ক পেটানো হয়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পিটুনির সময় নিহত আবরারকে ‘শিবিরকর্মী’ হিসেবে চিহ্নিত করার চেষ্টা চালায় খুনিরা। নিহত আবরার বুয়েটের তড়িৎ কৌশল বিভাগের মেধাবী ছাত্র ছিলেন।

এদিকে আবরার হত্যার পরদিন চকবাজার থানায় তার বাবা বরকত উল্লাহর করা মামলায় এখন পর্যন্ত ২১ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এরমধ্যে ১৬ জন মামলার এজাহারভুক্ত আসামি।

এজাহারভুক্ত ১৯ আসামি হলেন- মেহেদী হাসান রাসেল, মুহতাসিম ফুয়াদ, মো. অনিক সরকার, মেহেদী হাসান রবিন, ইফতি মোশাররফ সকাল, মনিরুজ্জামান মনি, মো. মেফহাহুল ইসলাম জিয়ন, মো. মাজেদুর রহমান, মো. তানভীর আহম্মেদ, মো. মোজাহিদুর, হোসেন মোহাম্মদ তোহা, মো. জিসান, মো. আকাশ, মো. শামীম বিল্লাহ, মো. শাদাত, মো. তানিম, মো. মোর্শেদ, মো. মোয়াজ ও মুনতাসির আল জেমি। এর মধ্যে মো. জিসান, মো. মোর্শেদ ও মো. তানিম এখনও পলাকত আছেন।

আর এজাহারের বাইরে থাকা ৫ আসামি হলেন- ইশতিয়াক আহমেদ মুন্না, অমিত সাহা, মো. মিজানুর রহমান ওরফে মিজান, শামসুল আরেফিন রাহাত, এস এম মাহমুদ সেতু।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয়

৪৭৩ ডিআইটি রোড তৃতীয় তলা, মালিবাগ রেইল গেট, ঢাকা-১২১৯

মোবাইলঃ ০১৯৭২৬৪৯৬১২, ০১৬২২৬৪৯৬১২

মেইলঃ tadantachitra93@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

error: Content is protected !!