TadantaChitra.Com | logo

২৩শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ৭ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

কৌশলে বাংলাদেশের সীমান্তে অবৈধে অস্ত্র আনে সে

প্রকাশিত : নভেম্বর ০৫, ২০১৯, ০৭:১০

কৌশলে বাংলাদেশের সীমান্তে অবৈধে অস্ত্র আনে সে

ঢাকা: কলকাতার অস্ত্র ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে বিভিন্ন সীমান্ত এলাকায় গোপন স্থানে রেখে পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশী অস্ত্র ব্যবসায়ীদের প্রয়োজন মত ও দর কষাকষি চূড়ান্ত হবার পরে তারা অস্ত্র এনে বিক্রি করে এমন অভিযোগের ভিত্তিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের গোয়েন্দা (উত্তর) বিভাগের একটি টিম বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে অস্ত্র ব্যবসার সাথে জড়িত মো হাফিজুর রহমান নামে একজনকে গ্রেপ্তার করেছে।

গত ০৪ নভেম্বর রাজধানীর মিরপুর মডেল থানাধীন কোরিয়া কারিগরী প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সামনে হতে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। এ সময় তার হেফাজত থেকে ০৪টি বিদেশী আগ্নেয়াস্ত্র ও ১৭ রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে পুলিশ।

এই বিষয়ে আজ ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানান ডিএমপি’র গোয়েন্দা উত্তর বিভাগের উপ-পুলিশ কমিশনার (ডিসি) মশিউর রহমান।

মশিউর বলেন, গ্রেপ্তারকৃত মো হাফিজুর রহমান তার সহযোগী মোঃ হাবিবুর রহমান বিশ্বাস ও জিল্লুর এর মাধ্যমে ভারত হতে বেনাপোল দিয়ে চোরাই পথে অবৈধ অস্ত্র-গুলি বাংলাদেশে আমদানী করে।

তিনি আরো বলেন, অস্ত্র গুলি প্রথমে বিহার থেকে কলকাতার অস্ত্র ব্যবসায়ীদের মাধ্যমে বিভিন্ন সীমান্ত এলাকায় যে কোন গোপন স্থানে রাখে। পরবর্তী সময়ে বাংলাদেশী অস্ত্র ব্যবসায়ীদের প্রয়োজন মত ও দর কষাকষি চূড়ান্ত হলে তারা ভারতে কলকতার উত্তর চব্বিশ পরগনা আংরাইল নামক সীমান্তবর্তী গ্রাম ও বাংলাদেশের বেনাপোলে পুটখালী গ্রামের নদীর তীরে গোসল করার কৌশলে বাংলাদেশের সীমান্তে অবৈধ ভাবে নিয়ে আসে। তারপর সুযোগ বুঝে এবং প্রয়োজন অনুযায়ী উক্ত অস্ত্র সীমান্তের গোপন স্থান হতে বের করে ঢাকাসহ অন্যান্য স্থানে পৌঁছে দেয়।

মশিউর বলেন, বলেন, তাদের এই অস্ত্র সন্ত্রাসী কার্যকলাপ, জঙ্গী গোষ্ঠী, রাজনৈতিক অস্থিতিশীলতা সৃষ্টিসহ নানা ধরনের নাশকতামূলক বা সন্ত্রাসী কার্যকলাপে ব্যবহার হয়ে থাকে। হাবিবুর এর মাধ্যমে ভারতের উত্তরা চব্বিশ পরগনার বনগ্রাম গ্রামের জাহাঙ্গীর নামক ব্যক্তির সাথে যোগাযোগ করলে জাহাঙ্গীর প্রত্যেকটি অস্ত্রের জন্য ৩০ হাজার করে টাকা নিয়ে থাকে। যার বিনিময়ে জাহাঙ্গীর ভারত হতে উক্ত অস্ত্র-গুলি সরবরাহ করে থাকে। সরবরাহকৃত অস্ত্র বাংলাদেশে এনে বিভিন্ন ব্যক্তির নিকট উচ্চ দামে বিক্রয় করে।

এ সংক্রান্তে মিরপুর মডেল থানায় মামলা রুজু করা হয়েছে বলে জানান ডিবি পুলিশের এই কমকর্তা।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয়

৪৭৩ ডিআইটি রোড তৃতীয় তলা, মালিবাগ রেইল গেট, ঢাকা-১২১৯

মোবাইলঃ ০১৯৭২৬৪৯৬১২, ০১৬২২৬৪৯৬১২

মেইলঃ tadantachitra93@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

error: Content is protected !!