TadantaChitra.Com | logo

২৪শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ | ৭ই ডিসেম্বর, ২০১৯ ইং

রোহিঙ্গারা কবে ফিরে যাবে বলা খুব কঠিন: জাতিসংঘ

প্রকাশিত : নভেম্বর ২৯, ২০১৯, ০৮:০৮

রোহিঙ্গারা কবে ফিরে যাবে বলা খুব কঠিন: জাতিসংঘ

ঢাকা: জ্বালাও-পোড়াও, নির্যাতন আর নিধনযজ্ঞের শিকার হয়ে প্রাণ নিয়ে পালিয়ে এসে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গারা কবে নাগাদ নিজ দেশে ফিরে যাবে তার সঠিক সময় বলা কিংবা নির্ধারণ করা কঠিন বলে মন্তব্য করেছে জাতিসংঘ।

জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর-এর উপ-হাইকমিশনার কেলি টি ক্লেমেন্টস ঢাকায় এক আলোচনায় অংশ নিয়ে এমন মন্তব্য করেন।

তিনি বলেন, ‘রোহিঙ্গারা কবে নাগাদ রাখাইনে ফিরে যাবে, তাদের প্রত্যাবাসন কবে শুরু হবে কিংবা সেই পরিবেশ কবে নাগাদ তৈরি হবে তার সময়সূচি বলা খুব কঠিন।’

ইউএনএইচসিআর-এর পক্ষ থেকে রোহিঙ্গা সংকট সমাধানে ও তাদের নিজ দেশে ফেরাতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে। সেইসঙ্গে রোহিঙ্গাদের টেকসই প্রত্যাবাসনের জন্য ইতিবাচক পরিবশে সৃষ্টিতে মিয়ানমারকে সমর্থন দিতে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতি আহ্বান জানানো হয়েছে।

৪ দিনের সফরে বাংলাদেশে আসা ক্লেমেন্টস গতকাল বৃহস্পতিবার ঢাকার একটি হোটেলে আলোচনাকালে বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ যে উদারতা ও মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে সে বিষয়ে আমরা বিশ্বমহলকে উৎসাহিত করছি।’

মিয়ানমারের সেনাবাহিনীর হত্যা, নিপীড়ন, ধর্ষণ, জ্বালাও-পোড়াওয়ের মুখে ২০১৭ সালের ২৫ আগস্টের পর থেকে ৭-৮ লাখ রোহিঙ্গা রাখাইন ছেড়ে সীমান্ত ও সাগর পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। গত দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে দেশছাড়া বিশাল এই জনগোষ্ঠীকে আশ্রয় দিয়ে বৈশ্বিক দৃষ্টিতে মানবিকতার নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করে বাংলাদেশ।

কিন্তু রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফেরানোর ব্যাপারে সব প্রস্তুতি নিয়েও দ্বিতীয় দফায়ও প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়া ভেস্তে গেছে। নতুন পুরোনো মিলিয়ে ৩৩টি ক্যাম্পে প্রায় ১১ লাখ রোহিঙ্গা আশ্রয় নিয়ে আছে। কিন্তু তাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নেয়ার ব্যাপারে আন্তর্জাতিক চাপের মুখেও কথা রাখছে না মিয়ানমার।


যোগাযোগ

বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যলয়

৪৭৩ ডিআইটি রোড তৃতীয় তলা, মালিবাগ রেইল গেট, ঢাকা-১২১৯

মোবাইলঃ ০১৯৭২৬৪৯৬১২, ০১৬২২৬৪৯৬১২

মেইলঃ tadantachitra93@gmail.com

সামাজিক যোগাযোগ

error: Content is protected !!